এস এম এস মার্কেটিং

যত্রতত্র উপায়ে বুস্টিং এর নামে অর্থের শ্রাদ্ধ না করে নিয়ম মেনে এড দিন

আমরা প্রতিদিন আমাদের মোবাইলে বিভিন্ন ধরনের প্রডাক্ট কিংবা সার্ভিস সংক্রান্ত এসএমএস পেয়ে থাকি। এমনকি বিভিন্ন উৎসবে এসএমএস এর মাধ্যমে আপনার কাছে শুভেচ্ছা বার্তা আসে। মূলত বিভিন্ন কোম্পানি তাদের সার্ভিসগুলোকে আমাদের কাছে তথ্য সহকারে পৌঁছে দেওয়ার কাজটি এসএমএস মার্কেটিং এর মাধ্যমে করে থাকে। এসএমএস মার্কেটিং অপেক্ষাকৃত কম খরচে রিটার্ন অফ ইনভেস্টমেন্ট ভালো আসায় এটি আপনার বিজনেসের জন্য চমৎকার ফলাফল দিতে বেশ সক্ষম।

যেহেতু আপনার স্মার্টফোনটি সার্বক্ষণিক ব্যবহৃত হয়, তাই সহজেই ক্রেতাদের হাতের নাগালে পেতে বিভিন্ন কোম্পানি, ব্যাংক কিংবা রিটেইল শপ সহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান প্রতিনিয়তই তাদের বিভিন্ন ধরনের প্রমোশনাল অফার কিংবা নতুন প্রডাক্ট সম্পর্কিত তথ্য অল্প কথায় ওয়েব লিংক কিংবা জরুরি কন্টাক্ট নম্বর সহকারে এসএমএস করে থাকে

1400+400

এছাড়া একই সাথে অনেক ইউজারকে একই সাথে রিচ করার দারুণ উপায় এসএমএস মার্কেটিং এখনকার সময়ে এসএমএস মার্কেটিং বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। এর আরও একটি কারণ হল, আমাদের অনেকেই সার্বক্ষণিক অনলাইন থাকি না। তাই ক্ষেত্র বিশেষে বিভিন্ন অনলাইন কিংবা ইমেইল মার্কেটিং এর চেয়েও এসএমএস মার্কেটিং অনেক বেশি সহায়ক ভূমিকা পালন করে। তাছাড়া প্রতিটি ক্যম্পেইনের পর সেটি কতটা কার্যকরী হল সেটিও স্বয়ংক্রিয় ভাবে নির্ণয় করা সম্ভব।

বিভিন্ন ধরনের এসএমএস মার্কেটিং হয়ে থাকে। তার মধ্যে টার্গেট অডিয়েন্স অনুযায়ী ভ্যালিড নম্বরে বাল্ক এসএমএম পাঠানোর পাশাপাশি বিজনেসের আপডেট, অফার, কুপন ইত্যাদি প্রদান করতে এসএমএস মার্কেটিং অনেক বেশি ব্যবহৃত হয়। এছাড়া ট্রানজেকশনাল এসএমএস, কনফার্মেশন এসএমএস, কাস্টমার সার্ভিস, ইত্যাদি ক্ষেত্রেও এসএমএস মার্কেটিং বেশ উপযোগী। তাই একটি বড় কাস্টমার গ্রুপের সাথে খুব কম খরচে এসএমএস মার্কেটিং এর মাধ্যমে নিরবিচ্ছিন্ন যোগাযোগ রাখা অনেক বেশি তাৎপর্যপূর্ণ। এতে করে কাস্টমারের মধ্যে একটি কোম্পানির প্রতি আস্থা এবং বিশ্বাস তৈরি হয়।তাই আপনার কোম্পানির সেল এবং ব্র্যান্ড ভ্যালু বাড়াতে আজই আমাদের কাছে এসএমএস সার্ভিস বুকিং এর জন্যে কল করুন অথবা ফেসবুক পেজে ইনবক্স করুন।