seo_optimization

পার্ট- ২ (SEOতে এক্সপার্ট হতে করণীয়)

স্টেপ-৫: সোশ্যাল শেয়ারঃ
এই লিঙ্ক ও আর্টিকেলগুলো একই সাথে বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন। যারা আপনার প্রতিযোগীর আর্টিকেল শেয়ার করছে তারা এটি কেন করছে সেই জিনিসটি পর্যবেক্ষণ করুন। তাদেরকে অনুরোধ করুন আপনার আর্টিকেলটি শেয়ার করতে।
স্টেপ-৬: ফলো মার্কেটিং ব্লগঃ
বিভিন্ন মার্কেটিং ব্লগ অনুসরণ করার মাধ্যমে আপনি মার্কেটিং এর লেটেস্ট ট্রেন্ড এন্ড টেকনিক সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারণা লাভ করতে পারেন। নিয়মিত ব্লগ অনুসরণ করা এবং ব্লগ লেখার মাধ্যমে আপনি SEOতে অনেকের চেয়ে ভাল করবেন।
স্টেপ-৭: মাসে অন্তত একটি এসইও টেস্ট করুনঃ
নিজে ব্লগ লেখলেও SEO টেস্টের জন্য মাসে কমপক্ষে একটি বিষয় টেস্টিং করুন। এখানে মেটা ট্যাগ বা টাইটেল ট্যাগের মতো ছোটখাট বিষয়ে বলছি না। যে সকল পুরাতন কনটেন্ট যথেষ্ট ট্রাফিক আনতে পারছে না সেগুলো ডিলিট করে নতুন কনটেন্ট আপ করতে পারেন। নতুন কোন পেইজের লিঙ্ক অ্যাড করতে পারেন যা র্যাঙ্কিং করতে সাহায্য করবে।
স্টেপ-৮: ধৈর্য্য ধরুন
SEOতে র্যাঙ্ক করাতে হলে ধৈর্য্য রাখার কোন বিকল্প নেই। এসইও শুরু করার ১/২/৬ মাসের মধ্যে গুগলের ১ম পেইজে চলে আসবেন এমন ধারণা করা থেকে বিরত থাকবেন। কোন সময় বেঁধে না দিয়ে নিয়মিত ভ্যালুয়েবল কনটেন্ট আপ করতে থাকলে এবং সাইটের অপটিমাইজেশন করলে খুব দ্রুত আপনার সাইট র্যাঙ্কিং করতে পারবে।

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *